Even Now No one Can Replace Salman Shah | সালমানের জনপ্রিয়তা দেখে ঈর্ষা করে এখনকার নায়কেরা01:31

  • 215,943 views
Published on September 19, 2015

সালমান শাহের সময়কার উঠতি বয়সের বেশির ভাগ ছেলেই তাকে আইডল মানতেন। তার ‘দাঁত দিয়ে নখ কাঁটার বদ অভ্যাস থেকে শুরু করে পকেটে টুপি থাকা সত্ত্বেও রুমাল গিট্টু মেরে মাথায় পরার স্টাইল পর্যন্ত সবই ফলো করতেন তখনকার তরুণরা। দিন গুনতে গুনতে আজ ১৯ বছর হয়ে গেছে উনি নেই| আজকালকার কিশোর কিশোরীরা ধারনা করে ফেসবুকে ফলো অপশানে ক্লিক করাই বুঝি ফলো করা। কিন্তু সেই সময়ে সালমানকে যারা ফলো করতেন তাদের জন্য ফলো করার সংজ্ঞাটাই ছিল ভিন্ন। বোধ করি সেজন্যই সালমানের মৃত্যু সংবাদ শুনে সর্বমোট ২১জন বাংলাদেশী তরুনী আত্মহত্যা করেছিলেন, প্রচুর ছেলেও মুষড়ে পড়েছিলেন। এমনকি পরের কয়েকমাসে কেডস, জিন্স, টিশার্টের বাজারে ছোট খাট ধ্বস ও নামে বলে তখনকার অনেকে উল্লেখ করেছেন। দেশের একজন সিনেমার অভিনেতার মৃত্যু যে সমাজে এভাবে প্রভাব ফেলতে পারে তা আজকালকার দিনে ভাবাই যায় না।

এই ১৯ বছরেও এতটুকু মলিন হয় নি সালমান শাহের জনপ্রিয়তা। আজও সালমানের পোশাকের স্টাইল , কথা বলার ভঙ্গী, অভিনয় দক্ষতা সব কিছুকেই ফলো করে যাচ্ছে তার ভক্তরা। এমনকি এখনকার নামী দামী অভিনয় শিল্পিরাও তাকে আইডল মানেন। এত বিপুল ভক্ত গোষ্ঠী সৃষ্টি করা কিন্তু যে সে ব্যাপার নয়। যদি যে সে ব্যাপার হত তবে এখনকার বাংলাদেশী সিনেমার নায়কদেরও তরুনরা চোখ বন্ধ করে ফলো করত। যেটা সুদূর ভবিষ্যতেও যে সম্ভব না তা আমার সাথে সাথে পুরো দেশের মানুষও জানে।
উনি আজ বেঁচে থাকলে হয়ত এদেশের ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিকে আরও কিছু ভালো সিনেমা উপহার দিয়ে যেতেন। সেই সাথে নতুন অভিনেতাদের এও শেখাতেন কেমন করে জনপ্রিয়তাকে আকাশের সান্নিধ্যে নিয়ে যাওয়া যায়।

Enjoyed this video?
"No Thanks. Please Close This Box!"